গাজীপুরে গ‍্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, দগ্ধ আরও ৪ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১১:০০:১৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৫ Time View

গাজীপুরের কালিয়াকৈর কোনাপাড়া এলাকায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ শিশুসহ আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১০ জনে।

রোববার (১৭ মার্চ) দিবাগত রাত ১২টার দিকে জহিরুল ইসলাম (৪০), রাত আড়াইটার দিকে মোতালেব (৪৫), সোমবার (১৮ মার্চ) সকাল সাড়ে ছয়টায় শিশু সোলায়মান (৯) ও সকাল পৌনে সাতটার দিকে শিশু রাব্বি (১৩) শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

জহিরুল ইসলাম সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার আয়নাল ফকিরের ছেলে। মোতালেব টাঙ্গাইলের মধুপুর থানার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে। শিশু সোলায়মান ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থানার শফিকুল ইসলামের ছেলে। শিশুর রাব্বি সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার মো শাহ আলমের ছেলে। তারা সবাই ওই এলাকায় ভাড়া থাকতো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. তরিকুল ইসলাম বলেন, গাজীপুরের কালিয়াকৈরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত শিশুসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। গত মধ্যরাত বারোটার দিকে জহিরুল ইসলামের শরীরের ৬৫ শতাংশ দগ্ধ নিয়ে, মোতালেব রাত আড়াইটার দিকে ৯৫ শতাংশ দগ্ধ নিয়ে, শিশু সোলায়মান সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে ৮০ শতাংশ দগ্ধ
নিয়ে ও সকাল পৌনে সাতটার দিকে ৯০ শতাংশ দগ্ধ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) মারা যান তারা। এই ঘটনা এখন পর্যন্ত নারী শিশুসহ ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

গাজীপুরে গ‍্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, দগ্ধ আরও ৪ জনের মৃত্যু

Update Time : ১১:০০:১৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪

গাজীপুরের কালিয়াকৈর কোনাপাড়া এলাকায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ শিশুসহ আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১০ জনে।

রোববার (১৭ মার্চ) দিবাগত রাত ১২টার দিকে জহিরুল ইসলাম (৪০), রাত আড়াইটার দিকে মোতালেব (৪৫), সোমবার (১৮ মার্চ) সকাল সাড়ে ছয়টায় শিশু সোলায়মান (৯) ও সকাল পৌনে সাতটার দিকে শিশু রাব্বি (১৩) শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

জহিরুল ইসলাম সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার আয়নাল ফকিরের ছেলে। মোতালেব টাঙ্গাইলের মধুপুর থানার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে। শিশু সোলায়মান ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থানার শফিকুল ইসলামের ছেলে। শিশুর রাব্বি সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানার মো শাহ আলমের ছেলে। তারা সবাই ওই এলাকায় ভাড়া থাকতো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. তরিকুল ইসলাম বলেন, গাজীপুরের কালিয়াকৈরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত শিশুসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। গত মধ্যরাত বারোটার দিকে জহিরুল ইসলামের শরীরের ৬৫ শতাংশ দগ্ধ নিয়ে, মোতালেব রাত আড়াইটার দিকে ৯৫ শতাংশ দগ্ধ নিয়ে, শিশু সোলায়মান সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে ৮০ শতাংশ দগ্ধ
নিয়ে ও সকাল পৌনে সাতটার দিকে ৯০ শতাংশ দগ্ধ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) মারা যান তারা। এই ঘটনা এখন পর্যন্ত নারী শিশুসহ ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।