খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে ফার্মা খাত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০২:৪৯:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪
  • / 12

বিদায়ী সপ্তাহে (২ জুন থেকে ৬ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে ফার্মা ও রসায়ন খাত। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে এই খাতে মোট লেনদেন হয়েছে ১৮ দশমিক ৮০ শতাংশ।

ইবিএল সিকিউরিটিজ লিমিটেডের সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, ১৪ দশমিক ৭০ শতাংশ লেনদেন করে খাতভিত্তিক লেনদেনের তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে খাদ্য খাতের শেয়ার। আর বস্ত্র খাতে ১২ দশমিক ৪০ শতাংশ লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

খাতভিত্তিক লেনদেনর তালিকায় থাকা অন্য খাতগুলোর মধ্যে প্রকৌশল খাতে ১০ দশমিক ৯০ শতাংশ, ব্যাংক খাতে ৬ দশমিক ৬০ শতাংশ, জীবন বিমা খাতে ৬ দশমিক ৩০ শতাংশ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ৫ শতাংশ, তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে ৪ দশমিক ৯০ শতাংশ, মিউচুয়াল ফান্ড খাতে সমান ৪ দশমিক ২০ শতাংশ, ভ্রমন খাতের ৩ দশমিক ৩০ শতাংশ, ট্যানারি খাতে ৩ দশমিক ১০ শতাংশ, সাধারণ বিমা খাতে ২ দশমিক ৪০ শতাংশ, বিবিধ খাতে ২ দশমিক ১০ শতাংশ, সিরামিকস খাতে সমান ২ দশমিক ১০ শতাংশ, আর্থিক খাতে ১ দশমিক ৩০ খাতে, পেপার খাতে ১ দশমিক ২০ শতাংশ, যোগাযোগ খাত ও সেবা খাতে সমান ০ দশমিক ৯০ শতাংশ, সিমেন্ট খাতে ০ দশমিক ৭০ শতাংশ এবং পাট খাতে ০ দশমিক ২০ শতাংশ।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে ফার্মা খাত

Update Time : ০২:৪৯:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪

বিদায়ী সপ্তাহে (২ জুন থেকে ৬ জুন) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) খাতভিত্তিক লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে ফার্মা ও রসায়ন খাত। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে এই খাতে মোট লেনদেন হয়েছে ১৮ দশমিক ৮০ শতাংশ।

ইবিএল সিকিউরিটিজ লিমিটেডের সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, ১৪ দশমিক ৭০ শতাংশ লেনদেন করে খাতভিত্তিক লেনদেনের তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে খাদ্য খাতের শেয়ার। আর বস্ত্র খাতে ১২ দশমিক ৪০ শতাংশ লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

খাতভিত্তিক লেনদেনর তালিকায় থাকা অন্য খাতগুলোর মধ্যে প্রকৌশল খাতে ১০ দশমিক ৯০ শতাংশ, ব্যাংক খাতে ৬ দশমিক ৬০ শতাংশ, জীবন বিমা খাতে ৬ দশমিক ৩০ শতাংশ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ৫ শতাংশ, তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে ৪ দশমিক ৯০ শতাংশ, মিউচুয়াল ফান্ড খাতে সমান ৪ দশমিক ২০ শতাংশ, ভ্রমন খাতের ৩ দশমিক ৩০ শতাংশ, ট্যানারি খাতে ৩ দশমিক ১০ শতাংশ, সাধারণ বিমা খাতে ২ দশমিক ৪০ শতাংশ, বিবিধ খাতে ২ দশমিক ১০ শতাংশ, সিরামিকস খাতে সমান ২ দশমিক ১০ শতাংশ, আর্থিক খাতে ১ দশমিক ৩০ খাতে, পেপার খাতে ১ দশমিক ২০ শতাংশ, যোগাযোগ খাত ও সেবা খাতে সমান ০ দশমিক ৯০ শতাংশ, সিমেন্ট খাতে ০ দশমিক ৭০ শতাংশ এবং পাট খাতে ০ দশমিক ২০ শতাংশ।