কেরালায় সেই হাতি হত্যায় একজন গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১০:৩৭:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০
  • / ১২৬ Time View

ভারতের কেরালায় গর্ভবতী হাতির মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাজ্যের বনমন্ত্রী কে রাজু শুক্রবার (৫ জুন) এ কথা জানান। হাতি হত্যা মামলায় এই প্রথম কাউকে গ্রেফতার করা হলো।

এছাড়া ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। বৃহস্পতিবারই মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই টুইটারে জানান, এখন পর্যন্ত তিনজন সন্দেহভাজনকে চিহ্নিত করেই এগোচ্ছে তদন্ত।

রাজ্যটির চিফ ওয়াইল্ড-লাইফ কর্মকর্তা বলেন, ৪০ বছর বয়স্ক এই ব্যক্তি নিজে বিস্ফোরকগুলো তৈরি করেন। অন্যকে এগুলো ব্যবহার করতেও তিনি সহায়তা করেন বলে উঠেছে অভিযোগ। গেলো ২৩ শে মে প্রথম রক্তাক্ত অবস্থায় হাতিটিকে দেখা যায় বলে জানিয়েছে বন বিভাগ। তবে দোসরা জুন মৃতদেহ উদ্ধার হয়।

বনকর্তাদের অনুমান, বুনো শুকর মারতে রেখে দেয়া বাজি ভরতি আনারস ভুল করে খেয়ে ফেলেছিল অন্তঃসত্ত্বা হাতিটি। তার জেরে এমন মর্মান্তিক কাণ্ড ঘটেছে। এমনকি গুড় মাখানো বাজিও খেয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

কেরালায় সেই হাতি হত্যায় একজন গ্রেফতার

Update Time : ১০:৩৭:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০

ভারতের কেরালায় গর্ভবতী হাতির মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাজ্যের বনমন্ত্রী কে রাজু শুক্রবার (৫ জুন) এ কথা জানান। হাতি হত্যা মামলায় এই প্রথম কাউকে গ্রেফতার করা হলো।

এছাড়া ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। বৃহস্পতিবারই মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই টুইটারে জানান, এখন পর্যন্ত তিনজন সন্দেহভাজনকে চিহ্নিত করেই এগোচ্ছে তদন্ত।

রাজ্যটির চিফ ওয়াইল্ড-লাইফ কর্মকর্তা বলেন, ৪০ বছর বয়স্ক এই ব্যক্তি নিজে বিস্ফোরকগুলো তৈরি করেন। অন্যকে এগুলো ব্যবহার করতেও তিনি সহায়তা করেন বলে উঠেছে অভিযোগ। গেলো ২৩ শে মে প্রথম রক্তাক্ত অবস্থায় হাতিটিকে দেখা যায় বলে জানিয়েছে বন বিভাগ। তবে দোসরা জুন মৃতদেহ উদ্ধার হয়।

বনকর্তাদের অনুমান, বুনো শুকর মারতে রেখে দেয়া বাজি ভরতি আনারস ভুল করে খেয়ে ফেলেছিল অন্তঃসত্ত্বা হাতিটি। তার জেরে এমন মর্মান্তিক কাণ্ড ঘটেছে। এমনকি গুড় মাখানো বাজিও খেয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।