কেন্দ্র থেকে নির্বাচনী সরঞ্জাম ছিনতাই, ভোট স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৬:৩২:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
  • / 13

ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগে চট্টগ্রামের পটিয়া ভোট স্থগিত করা হয়েছে। বুধবার (২৯ মে) সকালে পটিয়া উপজেলার কাশিয়াইশ‌ ইউনিয়নের ৩৪ নং পূর্ব পিঙ্গলা‌ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে দুর্বৃত্তদের হামলা ও নির্বাচনী সরঞ্জাম ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ফলে ওই কেন্দ্রে সাময়িকভাবে ভোট স্থগিত করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই কেন্দ্রে ২৪০-২৫০ জন দুর্বৃত্ত হামলা চালায়। তারা ৯টি ব্যালট‌ ব‌ই, ৫৫১টি ব্যালট‌ পেপার, ৪টি‌ মার্কিং সিল‌ ও ৩টি অফিসিয়াল সিল ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এ সময় ফাঁকা গুলি ছুড়ে ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে তারা।

এ বিষয়ে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের‌ সহায়তা চেয়েছেন বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রটির প্রিজাইডিং অফিসার শহীদুল্লাহ রায়হান।

তিনি বলেন, ঝামেলা হওয়ার পর ভোটগ্রহণ সাময়িক বন্ধ আছে। ঘটনাস্থলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আছেন।যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় তাহলে ভোটগ্রহণ আবারো শুরু করা হবে।

দুপুরে কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, এক সঙ্গে ২৫০ জন হামলা চলিয়েছিল। এত জনকে মোকাবিলা করা সম্ভব হয়নি। এ কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছেন।

নির্বাচন কমিশন বলেন, যে কোনো মূল্যে নির্বাচন সুষ্ঠু করতে হবে। বাকি কেন্দ্রে গুলোতে সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। প্রয়োজনে একবারের জায়গায় দুইবার নির্বাচন হবে। তবুও আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করতে চাই। আমাদের বক্তব্য হলো, নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য যা যা করা দরকার করা হবে। ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. শহীদুল্লাহ রায়হানকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশও দেন তিনি।

এ সময় পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলাউদ্দীন ভুইয়া জনী ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার আরিফুল ইসলাম, পটিয়া থানার ওসি জসীম উদ্দীনসহ বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

কেন্দ্র থেকে নির্বাচনী সরঞ্জাম ছিনতাই, ভোট স্থগিত

Update Time : ০৬:৩২:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪

ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগে চট্টগ্রামের পটিয়া ভোট স্থগিত করা হয়েছে। বুধবার (২৯ মে) সকালে পটিয়া উপজেলার কাশিয়াইশ‌ ইউনিয়নের ৩৪ নং পূর্ব পিঙ্গলা‌ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে দুর্বৃত্তদের হামলা ও নির্বাচনী সরঞ্জাম ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ফলে ওই কেন্দ্রে সাময়িকভাবে ভোট স্থগিত করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই কেন্দ্রে ২৪০-২৫০ জন দুর্বৃত্ত হামলা চালায়। তারা ৯টি ব্যালট‌ ব‌ই, ৫৫১টি ব্যালট‌ পেপার, ৪টি‌ মার্কিং সিল‌ ও ৩টি অফিসিয়াল সিল ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এ সময় ফাঁকা গুলি ছুড়ে ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে তারা।

এ বিষয়ে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের‌ সহায়তা চেয়েছেন বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রটির প্রিজাইডিং অফিসার শহীদুল্লাহ রায়হান।

তিনি বলেন, ঝামেলা হওয়ার পর ভোটগ্রহণ সাময়িক বন্ধ আছে। ঘটনাস্থলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আছেন।যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় তাহলে ভোটগ্রহণ আবারো শুরু করা হবে।

দুপুরে কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, এক সঙ্গে ২৫০ জন হামলা চলিয়েছিল। এত জনকে মোকাবিলা করা সম্ভব হয়নি। এ কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছেন।

নির্বাচন কমিশন বলেন, যে কোনো মূল্যে নির্বাচন সুষ্ঠু করতে হবে। বাকি কেন্দ্রে গুলোতে সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। প্রয়োজনে একবারের জায়গায় দুইবার নির্বাচন হবে। তবুও আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করতে চাই। আমাদের বক্তব্য হলো, নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য যা যা করা দরকার করা হবে। ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. শহীদুল্লাহ রায়হানকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশও দেন তিনি।

এ সময় পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলাউদ্দীন ভুইয়া জনী ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার আরিফুল ইসলাম, পটিয়া থানার ওসি জসীম উদ্দীনসহ বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।