কুমিল্লা শুয়াগাজী স্কুল মাঠে আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিক্ষাবৃত্তি সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১০:২০:৩৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০২৪
  • / ৪১ Time View

সোহাইবুল ইসলাম সোহাগ, কুমিল্লা

কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার ৩৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দাখিল-ফাজিল মাদ্রাসার ৪৬৯ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করেছে আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশন নামের একটি ফাউন্ডেশন।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার সুয়াগঞ্জ টিআই উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করেন। এতে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, এন্ট্রাস্ট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার আক্তারুজ্জামান রিপন।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসটি) মোশারফ হোসেন, সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবাইয়া খানম, সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, সদর দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বাবলু।

আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশন কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার ২২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ১৪টি দাখিল ও ফাজিল মাদ্রাসাসহ উপজেলার ৩৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করেছে।

উপজেলার সবকটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং দাখিল-ফাজিল মাদ্রাসার ৭ম থেকে ১০ম শ্রেণির প্রতিটি থেকে তিনজন করে মোট ৪৩২জন শিক্ষার্থীকে এবং উপজেলার ২০২৪ সালের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৩৭ জনসহ মোট ৪৬৯ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আক্তারুজ্জামান রিপন বলেন, পরিবার একটি নৈতিক শিক্ষার জায়গা, এই জায়গাটি সবার ঠিক রাখতে হবে। তাহলেই একজন মানুষ প্রকৃত শিক্ষিত বলে গণ্য হতে পারে। তাই আমি সকল শিক্ষার্থীকে অনুরোধ করব, তোমরা পড়াশোনার পাশাপাশি অবশ্যই নৈতিক শিক্ষার জায়গাটিকে অর্থাৎ পরিবারকে ঠিক রাখতে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান বলেন, আজকে আমার সামনে যে শিক্ষার্থীরা বসে আছে, আগামীর স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণেতারা ভূমিকা রাখবে। সেই লক্ষ্যে সকল শিক্ষার্থীকে অবশ্যই মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে অবদান রাখতে হবে। মাদকের বিরুদ্ধে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পরিসরে হলেও সবাইকে মাদকের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

কুমিল্লা শুয়াগাজী স্কুল মাঠে আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিক্ষাবৃত্তি সম্পন্ন

Update Time : ১০:২০:৩৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০২৪

সোহাইবুল ইসলাম সোহাগ, কুমিল্লা

কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার ৩৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দাখিল-ফাজিল মাদ্রাসার ৪৬৯ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করেছে আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশন নামের একটি ফাউন্ডেশন।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার সুয়াগঞ্জ টিআই উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করেন। এতে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, এন্ট্রাস্ট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার আক্তারুজ্জামান রিপন।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসটি) মোশারফ হোসেন, সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবাইয়া খানম, সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, সদর দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বাবলু।

আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশন কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার ২২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ১৪টি দাখিল ও ফাজিল মাদ্রাসাসহ উপজেলার ৩৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করেছে।

উপজেলার সবকটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং দাখিল-ফাজিল মাদ্রাসার ৭ম থেকে ১০ম শ্রেণির প্রতিটি থেকে তিনজন করে মোট ৪৩২জন শিক্ষার্থীকে এবং উপজেলার ২০২৪ সালের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৩৭ জনসহ মোট ৪৬৯ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে আব্দুর রহমান মাস্টার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আক্তারুজ্জামান রিপন বলেন, পরিবার একটি নৈতিক শিক্ষার জায়গা, এই জায়গাটি সবার ঠিক রাখতে হবে। তাহলেই একজন মানুষ প্রকৃত শিক্ষিত বলে গণ্য হতে পারে। তাই আমি সকল শিক্ষার্থীকে অনুরোধ করব, তোমরা পড়াশোনার পাশাপাশি অবশ্যই নৈতিক শিক্ষার জায়গাটিকে অর্থাৎ পরিবারকে ঠিক রাখতে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান বলেন, আজকে আমার সামনে যে শিক্ষার্থীরা বসে আছে, আগামীর স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণেতারা ভূমিকা রাখবে। সেই লক্ষ্যে সকল শিক্ষার্থীকে অবশ্যই মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে অবদান রাখতে হবে। মাদকের বিরুদ্ধে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পরিসরে হলেও সবাইকে মাদকের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।