কুবি ও সোনালী ব্যাংকের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৯:৪৪:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৯ অগাস্ট ২০২৩
  • / ২৬৮ Time View

কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শিক্ষার্থীদের অনলাইনে সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সোনালী ব্যাংকের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। তবে কখন থেকে কিংবা কোন ধাপের শিক্ষার্থীরা এই সেবা গ্রহণ করতে পারবে সে বিষয়টি জানা যায়নি।

বুধবার (০৯ আগস্ট) ঢাকা সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে চুক্তিটি স্বাক্ষর করেন ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. আসাদুজ্জামান।এসময় উপস্থিত ছিলেন সোনালী ব্যাংকের সিইও এন্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. আফজাল করিম এবং কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এফ এম আবদুল মঈন।

জানাযায়, বর্তমানে শিক্ষার্থীদের যে কোনো ফি জমা দেয়ার জন্য কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরাসরি ব্যাংকে উপস্থিত হতে হয়। এই চুক্তির ফলে শিক্ষার্থীরা পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে অনলাইন পদ্ধতির মাধ্যমে ২৪ ঘন্টায় বিভিন্ন ফি বা চার্জ প্রদান করতে পারবে।

এই বিষয়ে নিয়ে অর্থ ও হিসাব দপ্তরের উপ-পরিচালক মো. নাছির উদ্দিন বলেন, আমরা মাত্র চুক্তি স্বাক্ষর করেছি। কখন থেকে শিক্ষার্থীরা সেবাটি পাবে সে বিষয়টা নির্দিষ্ট করে বলতে পারছি না। তবে যখন চালু হবে তখন লেদনের যাবতীয় তথ্য শিক্ষার্থীর আইডিতে হিসাব থাকবে। তারা তাদের ট্রানজেকশন সম্পর্কে অবগত থাকবে। অনলাইনের মাধ্যেমে তারা সেবাটা গ্রহণ করতে পারবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল হক চৌধুরী, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক কামাল উদ্দিন ভূইয়া, উপ-পরিচালক মোঃ নাছির উদ্দিন, এবং সোনালী ব্যাংক পিএলসির ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর সুভাষ চন্দ্র দাস, জেনারেল ম্যানেজার তাওহিদুল ইসলাম, মো. মনিরুজ্জামান, মো. নূরুন নবী, শরিয়ত উল্লাহসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এবিষয় নিয়ে বিস্তারিত জানতে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল হক চৌধুরী কল দেওয়া হলে তিনি কল রিসিভ করেন নাই।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

কুবি ও সোনালী ব্যাংকের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর

Update Time : ০৯:৪৪:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৯ অগাস্ট ২০২৩

কুবি প্রতিনিধি:

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শিক্ষার্থীদের অনলাইনে সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সোনালী ব্যাংকের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। তবে কখন থেকে কিংবা কোন ধাপের শিক্ষার্থীরা এই সেবা গ্রহণ করতে পারবে সে বিষয়টি জানা যায়নি।

বুধবার (০৯ আগস্ট) ঢাকা সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে চুক্তিটি স্বাক্ষর করেন ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. আসাদুজ্জামান।এসময় উপস্থিত ছিলেন সোনালী ব্যাংকের সিইও এন্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. আফজাল করিম এবং কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এফ এম আবদুল মঈন।

জানাযায়, বর্তমানে শিক্ষার্থীদের যে কোনো ফি জমা দেয়ার জন্য কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সরাসরি ব্যাংকে উপস্থিত হতে হয়। এই চুক্তির ফলে শিক্ষার্থীরা পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে অনলাইন পদ্ধতির মাধ্যমে ২৪ ঘন্টায় বিভিন্ন ফি বা চার্জ প্রদান করতে পারবে।

এই বিষয়ে নিয়ে অর্থ ও হিসাব দপ্তরের উপ-পরিচালক মো. নাছির উদ্দিন বলেন, আমরা মাত্র চুক্তি স্বাক্ষর করেছি। কখন থেকে শিক্ষার্থীরা সেবাটি পাবে সে বিষয়টা নির্দিষ্ট করে বলতে পারছি না। তবে যখন চালু হবে তখন লেদনের যাবতীয় তথ্য শিক্ষার্থীর আইডিতে হিসাব থাকবে। তারা তাদের ট্রানজেকশন সম্পর্কে অবগত থাকবে। অনলাইনের মাধ্যেমে তারা সেবাটা গ্রহণ করতে পারবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল হক চৌধুরী, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক কামাল উদ্দিন ভূইয়া, উপ-পরিচালক মোঃ নাছির উদ্দিন, এবং সোনালী ব্যাংক পিএলসির ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর সুভাষ চন্দ্র দাস, জেনারেল ম্যানেজার তাওহিদুল ইসলাম, মো. মনিরুজ্জামান, মো. নূরুন নবী, শরিয়ত উল্লাহসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এবিষয় নিয়ে বিস্তারিত জানতে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল হক চৌধুরী কল দেওয়া হলে তিনি কল রিসিভ করেন নাই।