কারাবন্দির সঙ্গে নারী পুলিশ কর্মকর্তার গোপন ভিডিও নিয়ে হৈ চৈ

  • Update Time : ০৮:৩৮:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪
  • / 40

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে একটি ভিডিও। এতে দেখা যাচ্ছে, এক কারাবন্দির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করছেন এক নারী পুলিশ কর্মকর্তা। ভিডিওটি ফাঁসের পর এ নিয়ে হৈ চৈ শুরু হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাজ্যের লন্ডনের এইচএমপি ওয়ান্ডসওর্থ কারাগারে।

অভিযুক্ত নারী পুলিশ কর্মকর্তার নাম লিন্ডা ডি সোওসা। ৩০ বছর বয়সী এই কর্মকর্তা কারাগারটির নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। তার বিরুদ্ধে এখন সরকারি অফিসে অসদাচরণের অভিযোগ আনা হয়েছে। গতকাল সোমবার (১ জুলাই) অক্সব্রিজ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থিত করানো হয় এই কর্মকর্তাকে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিওটি কারাগারের ভেতর ধারণ করা হয়। এতে দেখা যাচ্ছে, কারাবন্দির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করার আগে ওই নারী কর্মকর্তার গায়ে পুলিশের পোশাক ছিল।

১৮৫১ সালে তৈরি করা এই কারাগারটি বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত। এখানে বর্তমানে দেড় হাজার কারাবন্দি রয়েছেন। যা এটি ধারণ ক্ষমতার চেয়ে ১৬৩ গুণ বেশি। এরমধ্যেই এই কারাগারের ভেতর হওয়া এমন ক্যালেঙ্কারির বিষয়টি সামনে আসল।

স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের এক মুখপাত্র চলমান তদন্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কারা কর্তৃপক্ষের এক প্রতিনিধি বলেছেন, “স্টাফদের দুর্নীতি সহ্য করা হবে না এবং কারাগারের সাবেক যে কর্মকর্তাকে ভিডিওতে দেখা গেছে তার সম্পর্কে পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।”

সূত্র: বিবিসি

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

কারাবন্দির সঙ্গে নারী পুলিশ কর্মকর্তার গোপন ভিডিও নিয়ে হৈ চৈ

Update Time : ০৮:৩৮:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে একটি ভিডিও। এতে দেখা যাচ্ছে, এক কারাবন্দির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করছেন এক নারী পুলিশ কর্মকর্তা। ভিডিওটি ফাঁসের পর এ নিয়ে হৈ চৈ শুরু হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাজ্যের লন্ডনের এইচএমপি ওয়ান্ডসওর্থ কারাগারে।

অভিযুক্ত নারী পুলিশ কর্মকর্তার নাম লিন্ডা ডি সোওসা। ৩০ বছর বয়সী এই কর্মকর্তা কারাগারটির নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। তার বিরুদ্ধে এখন সরকারি অফিসে অসদাচরণের অভিযোগ আনা হয়েছে। গতকাল সোমবার (১ জুলাই) অক্সব্রিজ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থিত করানো হয় এই কর্মকর্তাকে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ওই ভিডিওটি কারাগারের ভেতর ধারণ করা হয়। এতে দেখা যাচ্ছে, কারাবন্দির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করার আগে ওই নারী কর্মকর্তার গায়ে পুলিশের পোশাক ছিল।

১৮৫১ সালে তৈরি করা এই কারাগারটি বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত। এখানে বর্তমানে দেড় হাজার কারাবন্দি রয়েছেন। যা এটি ধারণ ক্ষমতার চেয়ে ১৬৩ গুণ বেশি। এরমধ্যেই এই কারাগারের ভেতর হওয়া এমন ক্যালেঙ্কারির বিষয়টি সামনে আসল।

স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের এক মুখপাত্র চলমান তদন্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কারা কর্তৃপক্ষের এক প্রতিনিধি বলেছেন, “স্টাফদের দুর্নীতি সহ্য করা হবে না এবং কারাগারের সাবেক যে কর্মকর্তাকে ভিডিওতে দেখা গেছে তার সম্পর্কে পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।”

সূত্র: বিবিসি