কক্সবাজার সদর হাসপাতালে অক্সিজেন প্ল্যান্ট স্থাপন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ১০:২৫:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ জুন ২০২০
  • / ২৫২ Time View
কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ
নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) সুবিধার পর এবার কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে স্থাপন করা হচ্ছে লিকুইড সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট। এই প্ল্যান্ট থেকে ২৫০ শয্যার পুরো হাসপাতালেটিতে অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে।

আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা ইউনিসেফ ও বাংলাদেশ সরকারের যৌথ উদ্যোগে দেশের কোনো জেলা সদর হাসপাতালে এটি হচ্ছে প্রথম সেন্ট্রাল অক্সিজেন স্থাপন প্রকল্প।

সোমবার (২২ জুন) হাসপাতালের উত্তর গেইটে এ প্ল্যান্ট স্থাপনের কাজ শুরু করা হয়।

প্রায় ৫৫ লাখ টাকা ব্যয়ে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ ও বাংলাদেশ সরকার যৌথভাবে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। তবে কবে নাগাদ এ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

দাতা সংস্থার পক্ষে কাজের তদারকি করছেন কক্সবাজার সিভিল অফিসের স্বাস্থ্য সমন্বয়ক ডা. জামশেদুল হক।

তিনি জানান, প্ল্যান্টটি বাস্তবায়নে বিদেশ থেকেও অনেক সরঞ্জাম আমদানি করতে হবে। তাই কখন শেষ করা যাবে তা নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না। এই প্রকল্পের কাজ শেষ হলে এখান থেকে পুরো হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহ করা যাবে।

এর আগে গত শনিবার (২০ জুন) কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ১৮ শয্যার বহুল আকাঙ্ক্ষিত আইসিও ও এইচডিও এর উদ্বোধন করা হয়েছে। ১০ ভেন্টিলেটর সুবিধাসহ এই আইসিইউ সুবিধার কারণে মহামারিতে করোনারোগীদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দেওয়া সম্ভব হবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

কক্সবাজার সদর হাসপাতালে অক্সিজেন প্ল্যান্ট স্থাপন শুরু

Update Time : ১০:২৫:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ জুন ২০২০
কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ
নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) সুবিধার পর এবার কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে স্থাপন করা হচ্ছে লিকুইড সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্ট। এই প্ল্যান্ট থেকে ২৫০ শয্যার পুরো হাসপাতালেটিতে অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে।

আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা ইউনিসেফ ও বাংলাদেশ সরকারের যৌথ উদ্যোগে দেশের কোনো জেলা সদর হাসপাতালে এটি হচ্ছে প্রথম সেন্ট্রাল অক্সিজেন স্থাপন প্রকল্প।

সোমবার (২২ জুন) হাসপাতালের উত্তর গেইটে এ প্ল্যান্ট স্থাপনের কাজ শুরু করা হয়।

প্রায় ৫৫ লাখ টাকা ব্যয়ে জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ ও বাংলাদেশ সরকার যৌথভাবে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। তবে কবে নাগাদ এ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

দাতা সংস্থার পক্ষে কাজের তদারকি করছেন কক্সবাজার সিভিল অফিসের স্বাস্থ্য সমন্বয়ক ডা. জামশেদুল হক।

তিনি জানান, প্ল্যান্টটি বাস্তবায়নে বিদেশ থেকেও অনেক সরঞ্জাম আমদানি করতে হবে। তাই কখন শেষ করা যাবে তা নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না। এই প্রকল্পের কাজ শেষ হলে এখান থেকে পুরো হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহ করা যাবে।

এর আগে গত শনিবার (২০ জুন) কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ১৮ শয্যার বহুল আকাঙ্ক্ষিত আইসিও ও এইচডিও এর উদ্বোধন করা হয়েছে। ১০ ভেন্টিলেটর সুবিধাসহ এই আইসিইউ সুবিধার কারণে মহামারিতে করোনারোগীদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দেওয়া সম্ভব হবে।