এমপি আনারকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৪:২৮:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
  • / 32

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মূলহোতাসহ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, আনারকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

বুধবার (২২ মে) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নবাব নওয়াব আলী সিনেট অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এসব তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত এ হত্যাকাণ্ডের কারণ জানতে তদন্ত চলছে। ইতোমধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ ছাড়াও কলকাতা পুলিশ এ নিয়ে তদন্ত করছে। এ হত্যাকাণ্ডে দুদেশের সরকারের সংশ্লিষ্টতা নেই।

তিনি বলেন, আমরা কূটনীতিক মিশনের মাধ্যমে এই বিষয়ে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখছি। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত মূল হোতাকে আমাদের ডিবি পুলিশ আটক করেছে।

তিনি আরও বলেন, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা বাংলাদেশ ও ভারতের দ্বিপক্ষীয় কোনো বিষয় নয়। মূল হোতাকে ডিবি পুলিশ আটক করেছে। আর কলকাতা পুলিশ দুজনকে আটক করেছে। এটা দুই রাষ্ট্রের কোনো বিষয় না।

এর আগে বুধবার সকালে ভারতের কলকাতার নিউটাউন থেকে আনোয়ারুল আজিম আনারের মরদেহ উদ্ধার করে দেশটির পুলিশ। গত ১১ মে চিকিৎসার জন্য ভারতে যান তিনি।

সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আব্দুর রউফ বলেন, গত ১১ মে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার চিকিৎসার জন্য ভারতে যান। কিন্তু এরপর তিন দিন পার হলেও পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে পারেননি। ভারত থেকে স্যার আমাকে সর্বশেষ ফোন করেন ১৬ মে সকাল ৭টা ৪৬ মিনিটে। কিন্তু আমি ধরতে পারিনি। এক মিনিট পরই কল ব্যাক করি। কিন্তু তিনি আর ধরেননি।

এমপি আনারের বিষয়ে তিনি আরও বলেন, ১৫ বছর ধরে আমি স্যারের পিএস হিসাবে আছি। এর আগেও স্যার একাধিকবার ভারতে গেছেন। কিন্তু কখনোই আমাকে নিয়ে যাননি।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

এমপি আনারকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Update Time : ০৪:২৮:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মূলহোতাসহ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, আনারকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে, যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

বুধবার (২২ মে) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নবাব নওয়াব আলী সিনেট অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এসব তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত এ হত্যাকাণ্ডের কারণ জানতে তদন্ত চলছে। ইতোমধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ ছাড়াও কলকাতা পুলিশ এ নিয়ে তদন্ত করছে। এ হত্যাকাণ্ডে দুদেশের সরকারের সংশ্লিষ্টতা নেই।

তিনি বলেন, আমরা কূটনীতিক মিশনের মাধ্যমে এই বিষয়ে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখছি। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত মূল হোতাকে আমাদের ডিবি পুলিশ আটক করেছে।

তিনি আরও বলেন, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা বাংলাদেশ ও ভারতের দ্বিপক্ষীয় কোনো বিষয় নয়। মূল হোতাকে ডিবি পুলিশ আটক করেছে। আর কলকাতা পুলিশ দুজনকে আটক করেছে। এটা দুই রাষ্ট্রের কোনো বিষয় না।

এর আগে বুধবার সকালে ভারতের কলকাতার নিউটাউন থেকে আনোয়ারুল আজিম আনারের মরদেহ উদ্ধার করে দেশটির পুলিশ। গত ১১ মে চিকিৎসার জন্য ভারতে যান তিনি।

সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আব্দুর রউফ বলেন, গত ১১ মে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার চিকিৎসার জন্য ভারতে যান। কিন্তু এরপর তিন দিন পার হলেও পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে পারেননি। ভারত থেকে স্যার আমাকে সর্বশেষ ফোন করেন ১৬ মে সকাল ৭টা ৪৬ মিনিটে। কিন্তু আমি ধরতে পারিনি। এক মিনিট পরই কল ব্যাক করি। কিন্তু তিনি আর ধরেননি।

এমপি আনারের বিষয়ে তিনি আরও বলেন, ১৫ বছর ধরে আমি স্যারের পিএস হিসাবে আছি। এর আগেও স্যার একাধিকবার ভারতে গেছেন। কিন্তু কখনোই আমাকে নিয়ে যাননি।