বিনোদন ডেস্ক:

কিংবদন্তি অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে রাজধানীর নারিন্দার পীর সাহেবের বাড়িতে। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জীবদ্দশায় এই হুজুরের মুরিদ ছিলেন দেশ বরেণ্য এই অভিনেতা।

এটিএম কন্যা কোয়েল আহমেদ  বলেছিলেন, ‘বাবাকে এফডিসি বা শহীদ মিনারে নেবো না। বাবার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে জোহরের নামাজের পর নারিন্দায় পীর সাহেবের বাড়িতে এবং দ্বিতীয় জানাজা বাদ আসর সূত্রাপুর মসজিদে। এরপর জুরাইন গোরস্থানে আমার বড় ভাই কামরুজ্জামান কবি’র কবরের পাশে বাবাকে সমাহিত করা হবে।’

জীবদ্দশায় এটিএম শামসুজ্জামান নিজেই এমন ইচ্ছের কথা জানিয়েছিলেন তার পরিবারকে। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানান তার জামাতা ইমতিয়াজ আহমেদ রাশেদ।

তিনি বলেন, ‘বাবা নারিন্দার পীর সাহেবের মুরিদ ছিলেন। তাই তার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী নারিন্দার পীর সাহেব তার গোসল ও জানাজার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবেন। বাবা বলেছেন- তার মৃত্যুর পর গোসল, জানাজা ও দাফন নারিন্দার পীর সাহেবের হাতে যেন হয়।’

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকালে সূত্রাপুরের নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন দেশ বরেণ্য অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান। বিষয়টি নিশ্চিত করে তার মেয়ে কোয়েল আহমেদ।

শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার কারণে বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বর্ষীয়ান এ অভিনেতাকে রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) তার মেয়ে কোয়েল আহমেদ জানিয়েছিলেন, তার বাবার অবস্থার উন্নতি হয়েছে। পরে শুক্রবার বিকেলে এটিএম শামসুজ্জামানকে বাসায় নিয়ে আসা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

four × one =