উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে কুবি শিক্ষকদের চতুর্থ দিনের অবস্থান কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৬:৩৬:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪
  • / ৪৬ Time View

কুবি প্রতিনিধি ;

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈন ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো: আসাদুজ্জামান এর নেতৃত্বে অছাত্র ও বহিরাগত কর্তৃক শিক্ষকদের উপর হামলার প্রতিবাদে উভয়ের পদত্যাগ /অপসারণের এক দফা দাবিতে ৪র্থ দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে কুবি শিক্ষক সমিতি।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে শিক্ষকরা এ কর্মসূচি করেন। বিশ্বিবদ্যালয় বন্ধ থাকলেও এই দিন প্রায় ত্রিশজন শিক্ষক অবস্থান কর্মসূচিতে যোগ দেন।

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ড. মো. মোকাদ্দেস উল ইসলাম বিদ্যুৎ বলেন, যতদিন উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ে তার পদে থাকবেন আমাদের এই আন্দোলন চলবে। একজন উপাচার্য হয়ে তিনি শিক্ষকদের উপর হামলা করেছেন। সাবেক শিক্ষার্থীদের মাধ্যমেও শিক্ষকদের উপর হামলা করিয়েছেন। অথচ সকল শিক্ষকরা তার নিরপত্তায় থাকার কথা ছিলো। যেখানে শিক্ষকরা তার কাছে নিরাপদ নয়। সেখানে ছাত্র-ছাত্রীরাও নিরাপদ থাকবে না। আমরা তার পদত্যাগ চাই। পাশাপাশি, যে সকল অছাত্র শিক্ষকদের উপর হামলা করেছে তাদেরও বিচার দাবি করছি।

উল্লেখ্য, শিক্ষকদের ৭ দফা দাবি নিয়ে বিভিন্ন আন্দোলন ও কর্মসূচি পালন করে আসছিলো বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। পরে উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ ও প্রক্টরকে বিশ্ববিদ্যালয়ে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে তাদের দপ্তরে তালা দেয় সংগঠনটি। সর্বশেষ, ২৮ এপ্রিল উপাচার্য ও শিক্ষক সমিতির সাথে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে দুই পক্ষই থানায় অভিযোগ জানায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৩০ এপ্রিল জরুরি সিন্ডিকেট সভার মাধ্যমে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়। এদিকে শিক্ষকদের উপর হামলার প্রতিবাদে উপাচার্যের পদত্যাগ/অপসারণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছে শিক্ষক সমিতি।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে কুবি শিক্ষকদের চতুর্থ দিনের অবস্থান কর্মসূচি

Update Time : ০৬:৩৬:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪

কুবি প্রতিনিধি ;

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈন ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো: আসাদুজ্জামান এর নেতৃত্বে অছাত্র ও বহিরাগত কর্তৃক শিক্ষকদের উপর হামলার প্রতিবাদে উভয়ের পদত্যাগ /অপসারণের এক দফা দাবিতে ৪র্থ দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে কুবি শিক্ষক সমিতি।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে শিক্ষকরা এ কর্মসূচি করেন। বিশ্বিবদ্যালয় বন্ধ থাকলেও এই দিন প্রায় ত্রিশজন শিক্ষক অবস্থান কর্মসূচিতে যোগ দেন।

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ড. মো. মোকাদ্দেস উল ইসলাম বিদ্যুৎ বলেন, যতদিন উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ে তার পদে থাকবেন আমাদের এই আন্দোলন চলবে। একজন উপাচার্য হয়ে তিনি শিক্ষকদের উপর হামলা করেছেন। সাবেক শিক্ষার্থীদের মাধ্যমেও শিক্ষকদের উপর হামলা করিয়েছেন। অথচ সকল শিক্ষকরা তার নিরপত্তায় থাকার কথা ছিলো। যেখানে শিক্ষকরা তার কাছে নিরাপদ নয়। সেখানে ছাত্র-ছাত্রীরাও নিরাপদ থাকবে না। আমরা তার পদত্যাগ চাই। পাশাপাশি, যে সকল অছাত্র শিক্ষকদের উপর হামলা করেছে তাদেরও বিচার দাবি করছি।

উল্লেখ্য, শিক্ষকদের ৭ দফা দাবি নিয়ে বিভিন্ন আন্দোলন ও কর্মসূচি পালন করে আসছিলো বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। পরে উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ ও প্রক্টরকে বিশ্ববিদ্যালয়ে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে তাদের দপ্তরে তালা দেয় সংগঠনটি। সর্বশেষ, ২৮ এপ্রিল উপাচার্য ও শিক্ষক সমিতির সাথে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে দুই পক্ষই থানায় অভিযোগ জানায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৩০ এপ্রিল জরুরি সিন্ডিকেট সভার মাধ্যমে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়। এদিকে শিক্ষকদের উপর হামলার প্রতিবাদে উপাচার্যের পদত্যাগ/অপসারণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছে শিক্ষক সমিতি।