ঈদগাঁও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আজিজুল হক রুবেলের মনোনয়ন প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৫:০০:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪
  • / ৩৫ Time View

দলীয় সীদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে 

মোঃ রফিক উদ্দিন লিটন

কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আজিজুল হক রুবেল তার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করেছেন। 

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে ঈদগাঁও পাবলিক লাইব্রেরীতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দলীয় সীদ্ধান্ত মেনে মনোনয়ন প্রত্যাহারের ঘোষণা করেন।

ঈদগাঁও উপজেলা যুবদলের  সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা যুবদলের সদস্য আজিজুল হক রুবেল জানান,

তার আদর্শের রাজনৈতিক দল তথা ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে তিনি নির্বাচন বর্জনের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যেহেতু তার দল এ নির্বাচনে যাচ্ছে না তাই তিনি দলীয় নীতি ও আদর্শের প্রতি শ্রদ্ধা পোষণ করে নির্বাচনী কার্যক্রম থেকে নিজেকে বিরত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন। 

তিনি আরো জানান, দেশ নায়ক তারেক রহমানের নির্দেশে এবং বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে তিনি তার দাখিলকৃত মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করতে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেছেন।

, তিনি আসন্ন ঈদগাঁও উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে বৈধ ঘোষিত একজন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী। নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের অনুরোধে তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। জনগণের প্রকৃত সেবক হতে ২০১৩ সাল হতে তিনি বৃহত্তর ঈদগাঁও এলাকায় নানা সামাজিক কর্মকান্ড সহ গরীব, দুঃখী ও মেহনতি মানুষকে সহযোগিতার মাধ্যমে তাদের পাশে ছিলেন। নিকারে যেদিন ঈদগাঁওকে উপজেলা অনুমোদন দেয়া হয় সেদিনই তিনি নিজেকে ঈদগাঁও উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান পদের একজন প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল মতে তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করে রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক একজন বৈধ প্রার্থী হিসেবে ঘোষিত হন। কিন্তু তার আদর্শের দল বিএনপি’র সিদ্ধান্ত হচ্ছে এ সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনে না যাওয়ার। তাই তিনি দলের এ নির্দেশনার প্রতি সম্মান জানিয়ে সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক জননেতা লুৎফুর রহমান কাজলের সাথে পরামর্শ করে তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার ও নির্বাচন বর্জনের এ ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি উল্লেখ করেন, নির্বাচন থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিলেও তিনি সবসময় জনগণের পাশে থাকবেন। তিনি বলেন, আমি বিএনপিতে ছিলাম, আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব। বিএনপি আমার প্রাণের সংগঠন। এর নীতি ও আদর্শের সাথে আমি কখনো দ্বিমত করতে পারি না। নির্বাচন থেকে সরে আসায় আমার শুভাকাঙ্ক্ষীরা মনে যে কষ্ট পেয়েছেন আমি তার জন্য ব্যক্তিগতভাবে অত্যন্ত দুঃখিত ও ব্যথিত। সবাইকে তিনি বিষয়টি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানান।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ঈদগাঁও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আজিজুল হক রুবেলের মনোনয়ন প্রত্যাহার

Update Time : ০৫:০০:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪

দলীয় সীদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে 

মোঃ রফিক উদ্দিন লিটন

কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আজিজুল হক রুবেল তার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করেছেন। 

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে ঈদগাঁও পাবলিক লাইব্রেরীতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দলীয় সীদ্ধান্ত মেনে মনোনয়ন প্রত্যাহারের ঘোষণা করেন।

ঈদগাঁও উপজেলা যুবদলের  সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা যুবদলের সদস্য আজিজুল হক রুবেল জানান,

তার আদর্শের রাজনৈতিক দল তথা ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে তিনি নির্বাচন বর্জনের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যেহেতু তার দল এ নির্বাচনে যাচ্ছে না তাই তিনি দলীয় নীতি ও আদর্শের প্রতি শ্রদ্ধা পোষণ করে নির্বাচনী কার্যক্রম থেকে নিজেকে বিরত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন। 

তিনি আরো জানান, দেশ নায়ক তারেক রহমানের নির্দেশে এবং বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে তিনি তার দাখিলকৃত মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করতে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেছেন।

, তিনি আসন্ন ঈদগাঁও উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে বৈধ ঘোষিত একজন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী। নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের অনুরোধে তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। জনগণের প্রকৃত সেবক হতে ২০১৩ সাল হতে তিনি বৃহত্তর ঈদগাঁও এলাকায় নানা সামাজিক কর্মকান্ড সহ গরীব, দুঃখী ও মেহনতি মানুষকে সহযোগিতার মাধ্যমে তাদের পাশে ছিলেন। নিকারে যেদিন ঈদগাঁওকে উপজেলা অনুমোদন দেয়া হয় সেদিনই তিনি নিজেকে ঈদগাঁও উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান পদের একজন প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল মতে তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করে রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক একজন বৈধ প্রার্থী হিসেবে ঘোষিত হন। কিন্তু তার আদর্শের দল বিএনপি’র সিদ্ধান্ত হচ্ছে এ সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনে না যাওয়ার। তাই তিনি দলের এ নির্দেশনার প্রতি সম্মান জানিয়ে সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক জননেতা লুৎফুর রহমান কাজলের সাথে পরামর্শ করে তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার ও নির্বাচন বর্জনের এ ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি উল্লেখ করেন, নির্বাচন থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিলেও তিনি সবসময় জনগণের পাশে থাকবেন। তিনি বলেন, আমি বিএনপিতে ছিলাম, আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব। বিএনপি আমার প্রাণের সংগঠন। এর নীতি ও আদর্শের সাথে আমি কখনো দ্বিমত করতে পারি না। নির্বাচন থেকে সরে আসায় আমার শুভাকাঙ্ক্ষীরা মনে যে কষ্ট পেয়েছেন আমি তার জন্য ব্যক্তিগতভাবে অত্যন্ত দুঃখিত ও ব্যথিত। সবাইকে তিনি বিষয়টি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানান।