ইবি শিক্ষকের অশ্লীল প্রেমালাপ ফাঁস, তদন্ত কমিটি

  • Update Time : ১২:০৭:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০
  • / 175
রেদওয়ান রাকিব, ইবি প্রতিনিধি:
নারী শিক্ষার্থীর সঙ্গে অশ্লীল প্রেমালাপের অডিও ক্লিপ ফাঁস হওয়ার অভিযোগে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানকে শোকজ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।  সেই সাথে আগামী সাত দিনের মধ্যে রেজিস্ট্রার বরাবর কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। এছাড়া তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিসি’র পরিচালকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতিসহ ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
.
শুক্রবার (৩ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
.
বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও এক নারী শিক্ষার্থীর মধ্যে কথােপকথনের একাধিক অডিও সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তা কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগােচর হয়।
.
অধ্যাপক মিজানুর রহমান ও নারী শিক্ষার্থীর মধ্যে ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপে যেভাবে অশ্লীল ও আপত্তিকর কথাবার্তা হয়েছে তা শিক্ষক হিসেবে নৈতিক স্বলনের (Moral Turpitude) সামিল। যাতে শিক্ষক সমাজসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমুর্তি এবং শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর মধ্যকার সম্পর্কের পবিত্রতা ক্ষুন্ন হয়েছে।
.
এদিকে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এতে আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. হালিমা খাতুনকে আহবায়ক করা হয়েছে। কমিটির অন্যন্য দুজন সদস্য হলেন দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শেলীনা নাসরিন ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।
.
প্রসঙ্গত, গতকাল মঙ্গলবার (৩০ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও এক নারী শিক্ষার্থীর অশ্লীল প্রেমালাপের দুটি অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়। এই অডিও ক্লিপের একটিতে ড. মিজানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নারী শিক্ষার্থীকে একা বাসায় আসার প্রস্তাব দেওয়াসহ বিভিন্ন ধরণের অশ্লীল আলাপ করতে শোনা যায়।
Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

ইবি শিক্ষকের অশ্লীল প্রেমালাপ ফাঁস, তদন্ত কমিটি

Update Time : ১২:০৭:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০
রেদওয়ান রাকিব, ইবি প্রতিনিধি:
নারী শিক্ষার্থীর সঙ্গে অশ্লীল প্রেমালাপের অডিও ক্লিপ ফাঁস হওয়ার অভিযোগে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানকে শোকজ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।  সেই সাথে আগামী সাত দিনের মধ্যে রেজিস্ট্রার বরাবর কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। এছাড়া তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিসি’র পরিচালকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতিসহ ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
.
শুক্রবার (৩ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
.
বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও এক নারী শিক্ষার্থীর মধ্যে কথােপকথনের একাধিক অডিও সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তা কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগােচর হয়।
.
অধ্যাপক মিজানুর রহমান ও নারী শিক্ষার্থীর মধ্যে ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপে যেভাবে অশ্লীল ও আপত্তিকর কথাবার্তা হয়েছে তা শিক্ষক হিসেবে নৈতিক স্বলনের (Moral Turpitude) সামিল। যাতে শিক্ষক সমাজসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমুর্তি এবং শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর মধ্যকার সম্পর্কের পবিত্রতা ক্ষুন্ন হয়েছে।
.
এদিকে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এতে আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. হালিমা খাতুনকে আহবায়ক করা হয়েছে। কমিটির অন্যন্য দুজন সদস্য হলেন দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শেলীনা নাসরিন ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।
.
প্রসঙ্গত, গতকাল মঙ্গলবার (৩০ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও এক নারী শিক্ষার্থীর অশ্লীল প্রেমালাপের দুটি অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়। এই অডিও ক্লিপের একটিতে ড. মিজানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নারী শিক্ষার্থীকে একা বাসায় আসার প্রস্তাব দেওয়াসহ বিভিন্ন ধরণের অশ্লীল আলাপ করতে শোনা যায়।