আলোচিত বক্তা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবীর ইন্তেকাল

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৫:৩৪:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুন ২০২০
  • / ২০০ Time View

গ্রামবাংলার জনপ্রিয় বক্তা হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবী বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকাল সাড়ে ৩টায় ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

তিনি সারাবাংলাদেশে ব্যাপক জনপ্রিয় ইসলামি আলোচক হিসেবে সুপরিচিত ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ভৈরব বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদের খতিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবী হৃদরোগে আক্রান্ত ছিলেন। গত বেশ কিছুদিন যাবত তিনি অসুস্থ ছিলেন। বিকালে স্ট্রোক করলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জনপ্রিয় এ ইসলামি আলোচক ভৈরব বাস স্ট্যান্ড জামে মসজিদে খতিবের দায়িত্ব পালন করলেও তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পরা উপজেলার রামনগর গ্রামে।

হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবীকে নিজ গ্রাম রামনগরে তার মায়ের কবরের পাশে দাফন করার কথা রয়েছে। মাহফিলে মায়ের আলোচনায় তিনি ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন।

মৃত্যুকালে তিনি তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়ে, অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখেগেছেন। তার মৃত্যুতে তার ভক্তকুলের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

আল্লাহ তাআলা হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবীকে জান্নাতের সর্বোচ্চ মাকাম দান করুন। আমিন।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

আলোচিত বক্তা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবীর ইন্তেকাল

Update Time : ০৫:৩৪:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুন ২০২০

গ্রামবাংলার জনপ্রিয় বক্তা হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবী বৃহস্পতিবার (১১ জুন) বিকাল সাড়ে ৩টায় ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

তিনি সারাবাংলাদেশে ব্যাপক জনপ্রিয় ইসলামি আলোচক হিসেবে সুপরিচিত ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ভৈরব বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদের খতিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবী হৃদরোগে আক্রান্ত ছিলেন। গত বেশ কিছুদিন যাবত তিনি অসুস্থ ছিলেন। বিকালে স্ট্রোক করলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জনপ্রিয় এ ইসলামি আলোচক ভৈরব বাস স্ট্যান্ড জামে মসজিদে খতিবের দায়িত্ব পালন করলেও তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদী জেলার রায়পরা উপজেলার রামনগর গ্রামে।

হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবীকে নিজ গ্রাম রামনগরে তার মায়ের কবরের পাশে দাফন করার কথা রয়েছে। মাহফিলে মায়ের আলোচনায় তিনি ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন।

মৃত্যুকালে তিনি তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়ে, অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখেগেছেন। তার মৃত্যুতে তার ভক্তকুলের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

আল্লাহ তাআলা হাফেজ মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন ভৈরবীকে জান্নাতের সর্বোচ্চ মাকাম দান করুন। আমিন।