আ’লীগের দোয়া মাহফিল ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৬:০৬:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুন ২০২০
  • / ১৪৪ Time View

করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণকারী দলীয় নেতাকর্মীসহ সবার আত্মার মাগফিরাত এবং চিকিৎসাধীন নেতাদের সুস্থতা কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল ও মোনাজাত করেছে আওয়ামী লীগ।

শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতারাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে করোনায় মৃত্যুবরণকারী আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম এমপি, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হাজী মকবুল হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য বদরউদ্দিন আহমেদ কামরান ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী এবং সারাদেশ ও প্রবাসে সবার আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে মোনাজাত করা হয়। এ সময় আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন এমপিসহ চিকিৎসাধীন নেতাকর্মীসহ করোনা আক্রান্ত সবার সুস্থতা কামনা করা হয়।

একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টের শহীদদের রুহের মাগফিরাত এবং প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সব সদস্যের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়। এছাড়া চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, সামরিক-বেসামরিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসন ও গণমাধ্যম কর্মীসহ করোনা সংকট জয়ে নিয়োজিত সম্মুখযোদ্ধাদের অভিনন্দন জানিয়ে তাদের সুস্থতা ও মঙ্গল কামনা করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর থেকে সারাদেশে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা দুদর্শাগ্রস্ত মানুষের সহযোগিতায় নিয়োজিত রয়েছেন। পক্ষান্তরে বিএনপি ডিপফ্রিজে চলে গেছে।

তিনি বলেন, বিশ্বমানবের এই ক্রান্তিকালে বিএনপি নেতারা মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে ডিপফ্রিজ থেকে কাগজে পাঠানো বার্তায় রাজনৈতিক বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। যা কোনো প্রকৃত রাজনৈতিক সংগঠনের কাজ হতে পারে না। আমরা তাদের ডিপফ্রিজ থেকে বেরিয়ে এসে জনগণের পাশে দাঁড়াতে আহ্বান জানাচ্ছি।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন, মির্জা আজম, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাখাওয়াত হোসেন শফিক, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য সাহাবুদ্দিন ফরাজী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক এসএম মান্নান কচি, কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ্র, সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি, স্বেচ্ছাসবক লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু, মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি সায়ীদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শেখ আজগর নস্কর, ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য প্রমুখ।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

আ’লীগের দোয়া মাহফিল ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত

Update Time : ০৬:০৬:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুন ২০২০

করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণকারী দলীয় নেতাকর্মীসহ সবার আত্মার মাগফিরাত এবং চিকিৎসাধীন নেতাদের সুস্থতা কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল ও মোনাজাত করেছে আওয়ামী লীগ।

শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতারাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে করোনায় মৃত্যুবরণকারী আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম এমপি, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হাজী মকবুল হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য বদরউদ্দিন আহমেদ কামরান ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী এবং সারাদেশ ও প্রবাসে সবার আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে মোনাজাত করা হয়। এ সময় আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন এমপিসহ চিকিৎসাধীন নেতাকর্মীসহ করোনা আক্রান্ত সবার সুস্থতা কামনা করা হয়।

একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টের শহীদদের রুহের মাগফিরাত এবং প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সব সদস্যের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়। এছাড়া চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, সামরিক-বেসামরিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসন ও গণমাধ্যম কর্মীসহ করোনা সংকট জয়ে নিয়োজিত সম্মুখযোদ্ধাদের অভিনন্দন জানিয়ে তাদের সুস্থতা ও মঙ্গল কামনা করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর থেকে সারাদেশে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা দুদর্শাগ্রস্ত মানুষের সহযোগিতায় নিয়োজিত রয়েছেন। পক্ষান্তরে বিএনপি ডিপফ্রিজে চলে গেছে।

তিনি বলেন, বিশ্বমানবের এই ক্রান্তিকালে বিএনপি নেতারা মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে ডিপফ্রিজ থেকে কাগজে পাঠানো বার্তায় রাজনৈতিক বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। যা কোনো প্রকৃত রাজনৈতিক সংগঠনের কাজ হতে পারে না। আমরা তাদের ডিপফ্রিজ থেকে বেরিয়ে এসে জনগণের পাশে দাঁড়াতে আহ্বান জানাচ্ছি।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন, মির্জা আজম, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাখাওয়াত হোসেন শফিক, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য সাহাবুদ্দিন ফরাজী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক এসএম মান্নান কচি, কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ্র, সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি, স্বেচ্ছাসবক লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু, মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি সায়ীদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শেখ আজগর নস্কর, ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য প্রমুখ।