আমেরিকায় ট্রাম্প-বাইডেন বৈঠক করলে আমরাও সংলাপ করবো: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৬:০৮:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০২৩
  • / ১২২ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে বিএনপি তথা বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সরকারের কোনো সংলাপের সম্ভাবনা রয়েছে কি না- এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমেরিকায় ট্রাম্প-বাইডেন যেদিন বৈঠক করবে সেদিন আমরাও বৈঠক করবো।

মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। গ্লোবাল গেটওয়ে ফোরামে যোগদান উপলক্ষে সম্প্রতি বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে তিনদিনের সরকারি সফরের অভিজ্ঞতা তুলে ধরতে সংবাদ সম্মেলন করছেন প্রধানমন্ত্রী।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে সরকারপ্রধান বলেন, মাঝখানে কিছুদিন বিএনপি রাজনৈতিকভাবে কর্মসূচি করছিল এবং আপনারা নিশ্চয়ই বিশেষভাবে লক্ষ্য করেছিলেন আমাদের সরকার কিছু তাদের কোনো বাধা দেয়নি। তাদের ওপর একটা শর্ত ছিল, তারা অগ্নিসংযোগ বা ভাঙচুর করবে না।

বিএনপি একটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায় মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেছেন, এরা (বিএনপি) আসলে নির্বাচনই চায় না।

আগামী নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সঙ্গে কোনো সংলাপ হবে না বলে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, কার সঙ্গে সংলাপ, খুনিদের সঙ্গে কীসের সংলাপ, কীসের আলোচনা? খুনিদের সঙ্গে সংলাপ, এটা বাংলাদেশের জনগণও চায় না।

নির্বাচন কেউ ঠেকাতে পারবে না জানিয়ে তিনি আরও বলেন, নির্বাচন হবে এবং সময়মতোই হবে। নির্বাচন থামাতে পারবে না, আগেও পারেনি, এবারও পারবে না। যে যা-ই বলিআমরা কারও হুমকি পরোয়া করি না।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি সন্ত্রাসী সংগঠন। কানাডার আদালত একাধিকবার সেই রায় দিয়েছে। তাই সন্ত্রাসীদের কীভাবে শিক্ষা দিতে হয়, এবার সেভাবেই দিতে হবে।

ফিলিস্তিনে বর্বরোচিত হামলা চালানো ইসরায়েলের সঙ্গে বিএনপি ও জামায়াতের হামলার কোনো পার্থক্য নেই বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

Please Share This Post in Your Social Media

আমেরিকায় ট্রাম্প-বাইডেন বৈঠক করলে আমরাও সংলাপ করবো: প্রধানমন্ত্রী

Update Time : ০৬:০৮:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে বিএনপি তথা বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সরকারের কোনো সংলাপের সম্ভাবনা রয়েছে কি না- এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমেরিকায় ট্রাম্প-বাইডেন যেদিন বৈঠক করবে সেদিন আমরাও বৈঠক করবো।

মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। গ্লোবাল গেটওয়ে ফোরামে যোগদান উপলক্ষে সম্প্রতি বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে তিনদিনের সরকারি সফরের অভিজ্ঞতা তুলে ধরতে সংবাদ সম্মেলন করছেন প্রধানমন্ত্রী।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে সরকারপ্রধান বলেন, মাঝখানে কিছুদিন বিএনপি রাজনৈতিকভাবে কর্মসূচি করছিল এবং আপনারা নিশ্চয়ই বিশেষভাবে লক্ষ্য করেছিলেন আমাদের সরকার কিছু তাদের কোনো বাধা দেয়নি। তাদের ওপর একটা শর্ত ছিল, তারা অগ্নিসংযোগ বা ভাঙচুর করবে না।

বিএনপি একটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায় মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেছেন, এরা (বিএনপি) আসলে নির্বাচনই চায় না।

আগামী নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সঙ্গে কোনো সংলাপ হবে না বলে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, কার সঙ্গে সংলাপ, খুনিদের সঙ্গে কীসের সংলাপ, কীসের আলোচনা? খুনিদের সঙ্গে সংলাপ, এটা বাংলাদেশের জনগণও চায় না।

নির্বাচন কেউ ঠেকাতে পারবে না জানিয়ে তিনি আরও বলেন, নির্বাচন হবে এবং সময়মতোই হবে। নির্বাচন থামাতে পারবে না, আগেও পারেনি, এবারও পারবে না। যে যা-ই বলিআমরা কারও হুমকি পরোয়া করি না।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি সন্ত্রাসী সংগঠন। কানাডার আদালত একাধিকবার সেই রায় দিয়েছে। তাই সন্ত্রাসীদের কীভাবে শিক্ষা দিতে হয়, এবার সেভাবেই দিতে হবে।

ফিলিস্তিনে বর্বরোচিত হামলা চালানো ইসরায়েলের সঙ্গে বিএনপি ও জামায়াতের হামলার কোনো পার্থক্য নেই বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।