আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এম এনামুল হকের ইন্তেকাল

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৪:৩৮:১৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩
  • / ১৮০ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দেশের অন্যতম শীর্ষ শিল্প প্রতিষ্ঠান আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের চেয়ারম্যান ও দৈনিক সময়ের আলোর সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি আলহাজ এম এম এনামুল হক ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শনিবার দিবাগত রাত ১১টা ১৮ মিনিটে রাজধানীর গুলশানের নিজ বাসভবনে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয়ে, আত্মীয়স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

দেশের ব্যবসায়ী অঙ্গনের এই নক্ষত্রের ইন্তেকালের বিষয়টি নিশ্চিত করেন আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের প্রতিষ্ঠান দৈনিক সময়ের আলোর প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।

তিনি জানান, রোববার (২ এপ্রিল) সকাল ১০টায় গুলশান সোসাইটি মসজিদে (৬৯ নং রোড) দেশের স্বনামধন্য এই ব্যবসায়ীর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

জানাজা শেষে তার লাশ বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে। তার মৃত্যুতে স্বজন ও আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে নেমে আসে শোকের ছায়া। আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ ও দৈনিক সময়ের আলো পরিবারের পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশের পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানানো হয়েছে। মহান এই ব্যবসায়ীর মৃত্যুর খবরে রাতেই গুলশানে তার বাসভবনে ছুটে যান নিজ হাতে গড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। ব্যবসায়ী অঙ্গনেও নেমে আসে শোকের ছায়া।

আলহাজ এম এম এনামুল হক ১৯৫৮ সালের ১ ডিসেম্বর মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার দক্ষিণ মেদিনীপুর গ্রামে সম্ভ্রান্ত এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। দেশের অন্যতম আবাসন শিল্প প্রতিষ্ঠান আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি সফল এই ব্যবসায়ী ইসলামের খেদমতসহ নানা সামাজিক ও মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

এম এম এনামুল হকের নিজ হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ ১৯৯৩ সাল থেকে দেশের জনসাধারণের আবাসিক সমস্যার সমাধান, সামাজিক দায়িত্ব পালন, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং একই সঙ্গে চৌকস কর্মী বাহিনী তৈরির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বাংলাদেশের আবাসন শিল্প খাতের পথিকৃৎদের একজন। তিনি মিডিয়া উদ্যোক্তা হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেন। ইসলাম প্রসারে বহু মসজিদ, মাদরাসা, এতিমখানা ও দাতব্য প্রতিষ্ঠান তৈরি করেছেন তিনি। দেশের কর্মসংস্থানে তার ব্যাপক অবদান কখনো ভোলার নয়।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এম এনামুল হকের ইন্তেকাল

Update Time : ০৪:৩৮:১৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ এপ্রিল ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দেশের অন্যতম শীর্ষ শিল্প প্রতিষ্ঠান আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের চেয়ারম্যান ও দৈনিক সময়ের আলোর সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি আলহাজ এম এম এনামুল হক ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শনিবার দিবাগত রাত ১১টা ১৮ মিনিটে রাজধানীর গুলশানের নিজ বাসভবনে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয়ে, আত্মীয়স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

দেশের ব্যবসায়ী অঙ্গনের এই নক্ষত্রের ইন্তেকালের বিষয়টি নিশ্চিত করেন আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের প্রতিষ্ঠান দৈনিক সময়ের আলোর প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।

তিনি জানান, রোববার (২ এপ্রিল) সকাল ১০টায় গুলশান সোসাইটি মসজিদে (৬৯ নং রোড) দেশের স্বনামধন্য এই ব্যবসায়ীর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

জানাজা শেষে তার লাশ বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে। তার মৃত্যুতে স্বজন ও আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে নেমে আসে শোকের ছায়া। আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ ও দৈনিক সময়ের আলো পরিবারের পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশের পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানানো হয়েছে। মহান এই ব্যবসায়ীর মৃত্যুর খবরে রাতেই গুলশানে তার বাসভবনে ছুটে যান নিজ হাতে গড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। ব্যবসায়ী অঙ্গনেও নেমে আসে শোকের ছায়া।

আলহাজ এম এম এনামুল হক ১৯৫৮ সালের ১ ডিসেম্বর মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার দক্ষিণ মেদিনীপুর গ্রামে সম্ভ্রান্ত এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। দেশের অন্যতম আবাসন শিল্প প্রতিষ্ঠান আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি সফল এই ব্যবসায়ী ইসলামের খেদমতসহ নানা সামাজিক ও মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

এম এম এনামুল হকের নিজ হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ ১৯৯৩ সাল থেকে দেশের জনসাধারণের আবাসিক সমস্যার সমাধান, সামাজিক দায়িত্ব পালন, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং একই সঙ্গে চৌকস কর্মী বাহিনী তৈরির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বাংলাদেশের আবাসন শিল্প খাতের পথিকৃৎদের একজন। তিনি মিডিয়া উদ্যোক্তা হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেন। ইসলাম প্রসারে বহু মসজিদ, মাদরাসা, এতিমখানা ও দাতব্য প্রতিষ্ঠান তৈরি করেছেন তিনি। দেশের কর্মসংস্থানে তার ব্যাপক অবদান কখনো ভোলার নয়।