অশোক রায় নন্দী ছিলেন একজন প্রচারবিমুখ মানুষ: অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৯:৪৯:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
  • / 26

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য, ফরক্কাবাদ কলেজের সভাপতি অধ্যাপক ড.মীজানুর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশের
প্রথিতযোশা নাট্যযোদ্ধা এবং থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক
অশোক রায় নন্দী ছিলেন একজন প্রচার বিমুখ মানুষ। কর্মের মধ্য দিয়ে মানুষের মাঝে আজীবন বেঁচে থাকবেন তিনি। সাংস্কৃতিক জগতে অসামান্য অবদান রেখে গেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) চাঁদপুর ফরাক্কবাদ ডিগ্রী কলেজের গান্ধী ভবনে ৯নং বালিয়া ইউনিয়নবাসী আয়োজিত প্রয়াত অশোক রায় নন্দীর স্মরণ সভায় বক্তব্যে এসব কথা বলেন অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান।

বক্তব্যে রবীন্দ্রনাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড.বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, অশোক রায় নন্দী ছিলেন একজন আলোকিত মানুষ ছিলেন। নাটকের মাধ্যমে তিনি বাঙালি মূল্যবোধকে উপলব্ধি এবং তা জনগণের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে চেয়েছেন। দেশপ্রেমে ও মানবপ্রেমেও তিনি একজন খাঁটি মানুষ ছিলেন।

অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা নাট্যজন গাজী রাকায়েত বলেন, অশোক রায় নন্দীর মৃত্যুতে সাংস্কৃতিক এবং পুস্তক প্রকাশনা জগতে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা পূরণ হওয়ার নয়। শুধু পদপদবী নয় তিনি তার সৃজনশীলতা ও কর্মের মধ্য দিয়ে আমাদের মাঝে অনন্তকাল বেঁচে থাকবেন।

স্মরণসভায় স্মৃতিচারণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জননেতা সুজিত রায় নন্দী।

চাঁদপুরে নিজ জন্মস্থান চাঁদপুর সদরের বালিয়ায় অশোক রায় নন্দীকে বিনম্র শ্রদ্ধা এবং হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসায় স্মরণ করলেন এলাকাবাসী।

এসময় স্বপ্নদ্রষ্টা অশোক রায় নন্দীর রেখে যাওয়া কাজ এগিয়ে নেওয়ার দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তার পরিবার, সহকর্মী ও স্বজনরা।

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সাবেক নির্বাচন কমিশনার মোঃ শাহনেওয়াজ,চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন আহমেদ এবং সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল প্রমুখ।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

অশোক রায় নন্দী ছিলেন একজন প্রচারবিমুখ মানুষ: অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান

Update Time : ০৯:৪৯:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য, ফরক্কাবাদ কলেজের সভাপতি অধ্যাপক ড.মীজানুর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশের
প্রথিতযোশা নাট্যযোদ্ধা এবং থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক
অশোক রায় নন্দী ছিলেন একজন প্রচার বিমুখ মানুষ। কর্মের মধ্য দিয়ে মানুষের মাঝে আজীবন বেঁচে থাকবেন তিনি। সাংস্কৃতিক জগতে অসামান্য অবদান রেখে গেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) চাঁদপুর ফরাক্কবাদ ডিগ্রী কলেজের গান্ধী ভবনে ৯নং বালিয়া ইউনিয়নবাসী আয়োজিত প্রয়াত অশোক রায় নন্দীর স্মরণ সভায় বক্তব্যে এসব কথা বলেন অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান।

বক্তব্যে রবীন্দ্রনাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড.বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, অশোক রায় নন্দী ছিলেন একজন আলোকিত মানুষ ছিলেন। নাটকের মাধ্যমে তিনি বাঙালি মূল্যবোধকে উপলব্ধি এবং তা জনগণের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে চেয়েছেন। দেশপ্রেমে ও মানবপ্রেমেও তিনি একজন খাঁটি মানুষ ছিলেন।

অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা নাট্যজন গাজী রাকায়েত বলেন, অশোক রায় নন্দীর মৃত্যুতে সাংস্কৃতিক এবং পুস্তক প্রকাশনা জগতে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা পূরণ হওয়ার নয়। শুধু পদপদবী নয় তিনি তার সৃজনশীলতা ও কর্মের মধ্য দিয়ে আমাদের মাঝে অনন্তকাল বেঁচে থাকবেন।

স্মরণসভায় স্মৃতিচারণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জননেতা সুজিত রায় নন্দী।

চাঁদপুরে নিজ জন্মস্থান চাঁদপুর সদরের বালিয়ায় অশোক রায় নন্দীকে বিনম্র শ্রদ্ধা এবং হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসায় স্মরণ করলেন এলাকাবাসী।

এসময় স্বপ্নদ্রষ্টা অশোক রায় নন্দীর রেখে যাওয়া কাজ এগিয়ে নেওয়ার দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তার পরিবার, সহকর্মী ও স্বজনরা।

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সাবেক নির্বাচন কমিশনার মোঃ শাহনেওয়াজ,চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন আহমেদ এবং সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল প্রমুখ।